শারীরিক সম্পর্কে আনন্দ ও আকর্ষণ বৃদ্ধি করবেন যেভাবে

106

দাম্পত্যের রসায়ন ঠিকমত জমাতে হলে, যৌনতার বিকল্প কিছু নেই। যৌন জীবনের এই সফলতার উপর অনেকাংশে নির্ভর করছে আপনার বিবাহিত জীবনের অগ্রযাত্রা। আর এজন্য আপনার কিছু কৌশল ও পরিকল্পনা প্রয়োজন অবশ্যই। যৌনতার আনন্দ ও আকর্ষণ বৃদ্ধিতে, গবেষকদের পর্যালোচনার আলোকে চলুন জেনে নেয়া যাক প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো।

১. গড়ে তুলুন রোম্যান্টিক আবহ: প্রত্যাশিত আনন্দ পেতে হলে, আপনাকে পরিকল্পিত উপায়ে অগ্রসর হতে হবে। নিজের বেডরুমটিকে দুজন মিলে সাজিয়ে তুলুন। হালকা আলোয় চমৎকার একটি রোম্যান্টিক আবহ গড়ে তুলুন। সাজানো-গোছানো পরিবেশে দুজনেরই মনস্তাত্ত্বিক যোগাযোগ আরো নিবিড় হয়ে উঠবে। এজন্য উত্তেজক সাজগোজ এবং পোশাক-পরিচ্ছদেও গুরুত্ব দিতে হবে দুজনকে। চাইলে এয়ার ফ্রেশনার দিয়ে সুগন্ধও ছড়িয়ে দিতে পারেন চারপাশে।

২. মেতে উঠুন গল্প আর খুনসুটিতে: যৌনতা মানেই ঝাঁপিয়ে পড়া নয়। পারস্পরিক বোঝাপড়ার বিষয়টিকে মজবুত করতে তাই কিছুক্ষণ গল্প করুন সঙ্গীর সাথে। মেতে উঠুন আড্ডা আর খুনসুটিতে। এতে করে দুজনেরই ভাললাগা ও অনুভূতিগুলো আরো ঘনীভূত হয়ে উঠবে।

৩. শেয়ার করুন আপনার যৌন ফ্যান্টাসিগুলো: মনে মনে আপনি হয়তো যৌবনকে উপভোগ করার নানান চিন্তা ও পরিকল্পনা সাজিয়েছেন। সঙ্গীর সাথে সেগুলো শেয়ার করতে ভুলবেননা। এতে করে আপনার চাহিদা সম্পর্কে তার ভেতরে ধারনা তৈরী হবে। ঠিক একইভাবে সঙ্গীর চাহিদাগুলোও মনোযোগ দিয়ে শোনার চেষ্টা করুন। শুধু নিজেকে নয়; তাকেও আনন্দ দেয়ার দায়িত্ব কিন্তু আপনারই।

৪. বৈচিত্র্য আনুন আসনে: একঘেয়ে-ক্লান্তিকর পদ্ধতি পরিত্যাগ করুন। মনে রাখবেন, যতো বেশি বৈচিত্র্য ও পরিবর্তন আনতে পারবেন; ততোই উপভোগ্য হবে আপনাদের যৌনসম্পর্ক। বিভিন্ন প্রকার মৈথুন ও আসন সম্পর্কে ধারনা নিলে উপকৃত হবেন যথেষ্ট। এক্ষেত্রে বইপত্র বা ইন্টারনেট থেকেও সহায়তা নিতে পারেন। তবে পর্নগ্রাফিকে অবশ্যই না বলবেন। কারণ উত্তেজিত হওয়ার জন্য পর্ন নির্ভরতা খুবই নেতিবাচক; যা আপনার দাম্পত্য সম্পর্ককে অবশ্যই ক্ষতিগ্রস্থ করবে।

৫. মনোযোগী হোন সঙ্গীর প্রতি: স্বামী-স্ত্রী পরস্পরকে না বুঝলে বিরাট সমস্যা। তাই সঙ্গীর মনের ভাব ও ভাষা বোঝার দিকে মনোযোগী হতে হবে আপনাকে। তার ইচ্ছে-প্রত্যাশা-কামনা সবকিছুর প্রতি মনোনিবেশ করুন। এতে করে আপনার সঙ্গীও আপনার প্রতি ভালবাসা ও শ্রদ্ধা অনুভব করবে মন থেকে। মনে রাখবেন, শারীরীক আকর্ষণই সবকিছু নয়। একটা সম্পর্কের ভিত্তি গঠনে মানসিক ঐক্য থাকা অপরিহার্য।

৬. সম্ভব হলে ঘুরে আসুন কোথাও থেকে: দর্শণীয় ও প্রাকৃতিক সুন্দর জায়গাগুলো থেকে ঘুরে আসুন সম্ভব হলে। এতে দুজনের আনন্দ ও ভালোলাগাগুলো বৃদ্ধি পাবে বহুগুণ। পাহাড়-নদী-সমুদ্রের সান্নিধ্যে আপনার যৌনতার ফ্যান্টাসিগুলোও উপভোগ্য হয়ে উঠবে দারুনভাবে। সূত্র: হাফিংটন পোস্ট