হার্ট অ্যাটাকের আগে হৃদপিণ্ড যে সংকেত দেয়, জেনে নিন…

54

হার্ট অ্যাটাকের আগে যে সংকেত দেয়- বিশ্বজুড়েই হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে। বর্তমানে অনেক কম বয়সীদেরও এই রোগ ভুগতে দেখা যায়।

দিন দিন দূষণের মাত্রা যত বাড়ছে, ততই বাড়ছে শ্বাস কষ্টজনিত সমস্যা ও হার্টের সমস্যা।

এক গবেষণায় জানা গেছে, হার্ট অ্যাটাকের আগ থেকেই শরীরকে ক্রমাগত সংকেত দেয় হৃদপিণ্ড।

এক্ষেত্রে ৬টি তথ্যও দিয়েছেন গবেষকরা। এগুলো হল-

১. শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে। ধমনীতে রক্তের প্রবাহ কমে যায় বলেই এমনটা হয়।

২. ঝিমুনির ভাব হবে। একই সঙ্গে রক্তের প্রবাহ কমে যাওয়ায় শরীরে একটা শীতল ভাবও অনুভূত হবে।

৩. হার্ট অ্যাটাক আসার প্রায় এক মাস আগে থেকেই বুকে ব্যথা অনুভূত হতে থাকবে। এই ব্যথা বুকে থেকে শরীরের অন্য অংশেও ছড়িয়ে পড়বে।

বিশেষ করে পিঠ, হাত ও কাঁধে ছড়িয়ে বড়বে ব্যথা।

৪. হার্ট অ্যাটাক আসার আগে কিছুদিন আগে থেকেই ঠাণ্ডা লাগার সমস্যা বেড়ে যায়।

৫. সামান্য পরিশ্রমেই ক্লান্তিভাব হয়। আচমকা মাথাঘুরে পড়েও যেতে পারেন।

৬. কম-বেশি কাজেই দমের সমস্যা দেখা দেয়। যে কোনো কাজ করলেই শ্বাস নিতে সমস্যা হয়।

মাথাব্যথা হলে প্রাথমিকভাবে যা করবেন

জীবনে কখনো না কখনো মাথাব্যথায় আক্রান্ত হয়নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। মাথাব্যথার অন্যতম কারণের মধ্যে রয়েছে সাইনোসাইটিস, মাইগ্রেন, টেনশন হেডঅ্যাক ইত্যাদি।

মাথাব্যথা হলে প্রাথমিকভাবে করণীয় কী?

মাথাব্যথা হলে আমরা অনেক সময় প্যারাসিটামল বা ব্যথানাশক ওষুধ খাই। আসলে মাথাব্যথা হলে প্রাথমিকভাবে করণীয় কী এমন প্রশ্নের জবাবে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. সৌমিত্র সরকার বলেন, প্যারাসিটামল আসলে খুব সহজেই সবাই পেয়ে যায়।

চিকিৎসাপত্র ছাড়া এটি মানুষ কিনতে পারে। যেহেতু এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কম, তাই মানুষ এটি সহজে পায়। আসলে যার মাথাব্যথা তীব্রভাবে হয়, সেটা যদি প্রথম না হয়, তাহলে কিন্তু ব্যক্তিটি জানে কী করতে হবে।

অনেকে মাথায় পানি ঢালে বা প্যারাসিটামল খায়। এগুলো প্রাথমিকভাবে মাথাব্যথার চিকিৎসায় করা যেতে পারে। প্যারাসিটামল খাওয়া যেতে পারে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে।

তবে এর পরও ব্যথা না কমলে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে ভালোভাবে চিকিৎসা নিতে হবে।