সিলেটে ৫০ বছরের পুরনো কবর থেকে বেরোচ্ছে সুগন্ধি !

241

প্রখ্যাত আলেম মাওলানা মুশাহিদ বায়মপুরীর (রহ.) কবর থেকে সুগন্ধি বাতাস বের হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়েছে।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে কবরের পাশে ভিড় জমান বায়মপুরীর অনুসারীরা। সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায় কবরটি অবস্থিত।

এছাড়া দূর-দূরান্ত থেকেও ছুটে আসছেন মুসল্লিরা। কানাইঘাট দারুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষক হারুনুর রশীদ চতুলী বলেন, বুধবার মাগরিবের নামাজের পর ছাত্ররা মাওলানা মুশাহিদ বায়মপুরীর (রহ.) কবর থেকে এক ধরনের সুগন্ধ পান।

পরে তারা খবর দিলে আমরাও তা অনুভব করি। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ সুগন্ধ অনুভব করতে ছুটে আসেন। বৃহস্পতিবার দিনভর তার কবরে ভক্ত-অনুসারীদের ভিড় ছিল। এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রখ্যাত এ আলেমের মৃ”ত্যু’র দিন দা’ফ’নের পর একবার, দা’ফ’নের তিন মাস পর একবার এরপর ২০১২ সালে একবার কবর থেকে সুগন্ধ বের হয়। জানা গেছে, আল্লামা মুশাহিদ আহমদ বায়ামপুরী তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের একজন খ্যাতিমান আলেম, সমাজ সংস্কারক ও লেখক ছিলেন।

তৎকালীন পাক-পার্লামেন্টারিয়ান সদস্য এ আলেমের হাদিস বিশারদ হিসেবে উপমহাদেশে ব্যাপক খ্যাতি রয়েছে। সিলেটের কানাইঘাট দারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম ও শাইখুল হাদিস ছিলেন তিনি।

১৯৭১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি মা”রা যান মাওলানা মুশাহিদ বায়মপুরী (রহ.)। পরে তাকে দা’ফ’ন করা হয় কানাইঘাট উপজেলা সদরে দারুল উলুম মাদরাসা চত্বরে। সেখানেই তার কবরটি রয়েছে।

কানাইঘাট উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল্লাহ শাকির বলেন, শায়খুল ইসলাম আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী (রহ.) ছিলেন উপমহাদেশের একজন কিংবদন্তি। তিনি শুধু বাংলাদেশে নয়, আরব বিশ্বেও নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করেছেন। তার কবর থেকে এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো সুবাতাস প্রবাহিত হচ্ছে।