‘তোকে না পেয়ে, তোর ছেলেকে মারলাম’

রাজধানীর গুলিস্তান ফুলবাড়িয়া সিটি সুপার মার্কেটে দোকান মালিকের ছেলে সাইফুলের (৩৫) ছুরিকাঘাতে ভাড়াটিয়ার মাদ্রাসা পড়ুয়া ছেলে মো. ইউসুফ (৯) আহত হয়েছে। 

বুধবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে ঘটনাটি ঘটে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

শিশুর দুই হাত, পা ও পেটে ছুরিকাঘাতের জখম রয়েছে।

আহত ইউসুফ ওয়ারী জয়কালী মন্দিরের পাশে পরিবারের সাথে থাকতেন। তিনি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

শিশুর বাবা মো. আলী জানান, ফুলবাড়িয়া সিটি সুপার মার্কেটে তিনি দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছেন।

তার একটি দোকান রয়েছে। এবং আরেকটি অভিযুক্ত সাইফুলদের নিকট থেকে ভাড়া নিয়ে লুঙ্গি ব্যবসা করে আসছিলেন।

তিনি জানান, বাচ্চা তার নানার সাথে মার্কেটে এসেছিল। আমি নামাজে গিয়েছিলাম।

এ অবস্থায় ইউসুফ আশপাশে হাঁটাহাঁটি করছিলো। তখন অভিযুক্ত সাইফুল তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে ছু’রি মা’র’তে থাকে। শিশুর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। এরপর আমি নামাজ থেকে ফিরলে সাইফুল বলেন, ‘তোকে তো পারলাম না, তোর ছেলে কে মারলাম।’ 

শিশুর নানা ও দোকানের কর্মচারীরা তাকে ঢামেক হাসপাতাল নিয়ে আসেন। সে বর্তমানে চিকিৎসাধীন।

কি কারণে এ হা’ম’লা জানতে চাইলে আলী বলেন, হিংসা থেকে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। কারণ সাইফুল মাঝে মধ্যেই বলতো, ‘তোরা ছিলি আমাদের দোকান কর্মচারী এখন মালিকও হয়ে গেচছ।’

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, শিশুটি চিকিৎসাধীন। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবিহিত করা হয়েছে।