মেহেরপুরে ইবি শিক্ষার্থী উর্মির মরদেহ উদ্ধার

মেহেরপুরের গাংনীর বাজারপাড়া থেকে নিশাত তাসনিম উর্মি (২৪) নামে এক ইবি শিক্ষার্থীর ম’র’দে’হ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) রাতে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ম’র’দে’হ উদ্ধার করে ম’য়’না’তদন্তের জন্য মেহেরপুর ম’র্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিশাত তাসনিম উর্মি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

তিনি গাংনীর পদ্মা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী হাসেম শাহর ছেলে আসিকুজ্জামান প্রিন্সের স্ত্রী এবং গাংনী উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের গোলাম কিবরিয়ার মেয়ে।

উর্মির বাবা গোলাম কিবরিয়া বলেন, গভীর রাতে বেয়াই মোবাইল ফোনে জানায়, উর্মি অসুস্থ হওয়ায় তাকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে।

অসুস্থতার কারণ জানতে চাইলে বলেন, উর্মি নাকি ঘরের জানালার সঙ্গে ফাঁ’স দিয়েছে। খবর পেয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে জানতে পারি, উর্মি অনেক আগেই মা’রা গেছে। উর্মির শরীরের বিভিন্ন স্থানে আ’ঘা’তে’র চিহ্ন রয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, তাকে হ’ত্যা করে আ’ত্ম’হ’ত্যা বলে ধামাচাপা দেওয়া হচ্ছে। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হলে পুলিশ লা’শ থানা হেফাজতে নেয়।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, খবর পেয়ে ম’র’দে’হ পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার পর একটি অ’প’মৃ’ত্যু মামলা করা হয়েছে। ম’র’দে’হ মেহেরপুর ম’র্গে পাঠানো হয়েছে। ম’য়’না’তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।