নদীতে ভাসছিল ইলিশ, তুলতে গিয়ে ফেরির কর্মী নিখোঁজ

ভোলার ভেদুরিয়া ফেরিঘাট এলাকার তেঁতুলিয়া নদী দিয়ে মৃত ইলিশ তুলতে গিয়ে ফেরি থেকে পড়ে আমিনুল ইসলাম (২৫) নামের এক কর্মী নিখোঁজ হয়েছেন।

তিনি ভেদুরিয়া-লাহারহাট নৌ-রুটে চলাচলকারী কৃষ্ণচূড়া ফেরির লস্কর ছিলেন।

তার বাড়ি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলায়। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভেদুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপনএ ঘটনায় সকাল থেকেই ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ডের ডুবুরি দল তেঁতুলিয়া নদীতে উদ্ধার অভিযান চালালে বিকেল ৫টা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভেদুরিয়া ঘাট থেকে কৃষ্ণচূড়া নামের ফেরিটি গাড়ী নিয়ে লাহার হাট ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

এ সময় ফেরি পাশ দিয়ে একটি মৃত ইলিশ ভেসে যেতে দেখে ফেরির লস্কর আমিনুল ইসলাম সেটিকে তুলতে যায়। এ সময় পা পিছলে নদীতে পড়ে ডুবে যান।

পরে ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ডের ডুবরি দল এসে যৌথভাবে উদ্ধার অভিযান চালালেও বিকেল ৫টা পর্যন্ত তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

ভোলা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ মো. সুমন জানান, খবর পেয়ে ভোলা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিক উদ্ধার অভিযান চালায়। তবে ভোলায় ডুবুরি দল না থাকায় বরিশালের ডুবুরি দলকে খবর দিলে তারা এসে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলের আশপাশের অনেক খোঁজাখুজি করেও আমিনুলের কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। তবে তাকে না পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

বিআইডব্লিউটিসির লাহার ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) কাওছার আহমেদ খান বলেন, খবর পেয়ে আমরা লাহার থেকে ভেদুরিয়া ফেরিঘাটে এসে ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ডের সহায়তায় অনেক খোঁজাখুজি করেছি। তবে এখনো তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।